img

Follow us on

Wednesday, Jul 24, 2024

T20 World Cup: অর্শদীপের ম্যাজিক স্পেল, সূর্যের অর্ধশতরান! আমেরিকাকে হারিয়ে সুপার এইটে ভারত

Rohit Sharma: "এই পিচে ক্রিকেট সোজা নয়", তিনটে ম্যাচেই স্নায়ু চাপ ধরে রেখে জয় মানলেন রোহিত

img

সূর্যের অর্ধশতরান, সেরা বোলিং অর্শদীপের।

  2024-06-13 09:59:59

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (T20 World Cup) জয়ের হ্যাটট্রিক। আমেরিকাকে হারিয়ে সুপার আটে পৌঁছে গেল ভারত। নিউ ইয়র্কের কঠিন পিচে শেষ পর্যন্ত ভারতের রক্ষাকর্তা হয়ে দাঁড়ালেন সূর্যকুমার যাদব। ২২ রানে যাঁর ক্যাচ ফেলেছিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন ক্রিকেটার সৌরভ নেত্রভালকর। ৪৯ বলে ৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেললেন স্কাই। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পঞ্চাশতম হাফসেঞ্চুরি। তাঁকে সঙ্গত করলেন শিবম দুবে। আগের ম্যাচে লোপ্পা ক্যাপ ফেলে প্রবল সমালোচিত হন। এদিন বল করেও ব্যর্থ। ব্যাট হাতে অবশ্য ৩৫ বলে অপরাজিত ৩১ রান করে দলকে ম্যাচ জেতালেন শিবম। ১০ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতল ভারত।

অর্শদীপের ম্যাজিক স্পেল

টি২০ ক্রিকেটে (T20 World Cup) এদিন নিজের সেরা গড় অর্শদীপ সিংয়ের। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৯ রান দিয়ে তুলে নেন ৪ উইকেট। সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটের বিশ্বকাপে কোনও ভারতীয় বোলারের সেরা পরিসংখ্যান এটি। তাঁর দাপটেই ২০ ওভারের শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১০ রান তোলে আমেরিকা। তবে সেই রান তাড়া করতে নেমে  লড়াই করতে হয় ভারতকে। ১১১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে, জয় পেতে ১৮.২ ওভার লেগে যায় টিম ইন্ডিয়ার। শুরুতেই ফিরে যান কোহলি ও রোহিত (Rohit Sharma)। দ্রুত ফিরে যান ঋষভ পন্থও। চাপে পড়ে যায় দল। সেখান থেকে হাল ধরেন সূর্য ও শিবম। 

অতিরিক্ত রান পেল ভারত

জয়ের জন্য ভারতের যখন ৩০ বলে ৩৫ রান প্রয়োজন, তখন পেনাল্টিতে পাঁচ রান পায় ভারত। তার ফলে ৩০ বলে ভারতের টার্গেট হয় ৩০ রান। আসলে আইসিসি-র (T20 World Cup) নিয়ম অনুযায়ী, এক ওভার শেষ হওয়ার পরে যদি কোনও দল ৬০ সেকেন্ডের মধ্যে, পরের ওভার শুরু করতে না পারে, তাহলে 'ওয়ার্নিং' দেওয়া হবে। কোনও দল যদি নিজেদের বোলিং ইনিংসের সময় তিন বার এরকম ঘটনা ঘটিয়ে থাকে, তাহলে বিপক্ষ দলকে পাঁচ রান পেনাল্টি দেওয়া হবে। আর এই পাঁচ রানই চাপের মধ্যে পেয়েছে ভারত।

কী বললেন রোহিত

ম্যাচের পর প্রতিপক্ষকে নিয়ে রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) গলায় শোনা গেল সমীহের সুর। স্পষ্ট বাক্যে স্বীকার করলেন, আমেরিকাও তাঁদের বুকে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিল। ম্যাচের পর রোহিত বলেন, “জানতাম রান তাড়া করা কঠিন হবে। যে ভাবে আমাদের ব্যাটারেরা স্নায়ু ধরে রেখেছিল তার প্রশংসা করতেই হবে। ওই জুটিটার (শিবম-সূর্য) জন্যই জিতলাম। পরিণত মানসিকতা দেখিয়ে লম্বা একটা জুটি গড়ে জেতানোর জন্য সূর্য এবং শিবমের কৃতিত্ব প্রাপ্য।” আমেরিকা দলে বেশ কয়েক জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ক্রিকেটার খেলেন। তাঁদেরই একজন, সৌরভ নেত্রভালকর এদিন রোহিত ছাড়াও আউট করেছেন বিরাট কোহলিকে। সেই প্রসঙ্গে রোহিত বলেছেন, “ওরা অনেকেই দীর্ঘ দিন এক সঙ্গে ক্রিকেট খেলছে। ওদের উন্নতি দেখে খুব খুশি। গত বছর মেজর লিগ ক্রিকেটেও ওদের দেখেছিলাম। প্রত্যেকেই দারুণ পরিশ্রম করতে পারে।” বিশ্বকাপের (T20 World Cup) সুপার এইটে ওঠার প্রসঙ্গে রোহিত বলেছেন, “বড় শান্তি। এখানকার পিচে ক্রিকেট খেলা সোজা ব্যাপার ছিল না। তিনটে ম্যাচেই শেষ পর্যন্ত পড়ে থেকে জয় ছিনিয়ে নিতে হয়েছে। এই জয় আগামী দিনে আমাদের আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়িয়ে দেবে।” 

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

 

Tags:

Madhyom

BCCI

USA

bangla news

Arshdeep Singh

Rohit Sharma

Suryakumar Yadav

T20 World Cup 2024


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর