img

Follow us on

Monday, Mar 04, 2024

Peoples' Protest: ডিএ থেকে নিয়োগ দুই প্রজন্মই কেন আন্দোলনে? ভবিষ্যৎ ও বর্তমান

ডিএ থেকে নিয়োগ দুই প্রজন্মই কেন আন্দোলনে? ভবিষ্যৎ ও বর্তমান

  2023-03-11 19:49:25

৮ই মার্চ, ২০২৩ আন্তর্জাতিক নারী দিবস ভাল ছিল না বাংলার মেয়েদের জন্য। কারণ তাঁরা সেদিন পূর্ণ করেছিলেন নিয়োগের দাবিতে আন্দোলনের ৭২৫দিন। তবু কুম্ভকর্ণ সরকারের ঘুম ভাঙেনি।

SLST চাকরি প্রার্থীরা রাস্তায় বসে। ৭২৫ দিন। ন্যায্য নিয়োগের দাবিতে। বাংলা শিক্ষিত পরীক্ষা পাশ মেয়েরা এসএসসি-টেট সফল হয়েও চাকরির নিয়োগপত্র পাননি। তাঁদের চাকরি খেয়ে গেছে, দুর্নীতিগ্রস্থ অযোগ্যরা। বিধায়ক কাউন্সিলর জেলা পরিষদের পরিবার থেকে ঠিকাদার সন্তানেরা। টাকার বিনিময়ে। আর শাসকদলের নেতারা মন্ত্রী থেকে পর্ষদের কর্তা ও শিক্ষা ব্যবসায়ীরা দুহাতে কামিয়েছে টাকা। কোটি কোটি। কয়েকশ' কোটি কালো টাকার সমান্তরাল অর্থনীতি চালাচ্ছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তাঁর ভাইপো আর তাঁদের বশংবদ তৃণমূল নেতারা।

আর আটই মার্চ ৭২৫দিনের আন্দোলনেও ঘুম ভাঙেনি সরকারের। আন্দোলনকারীরা চাইছেন, কুম্ভকর্ণ সরকারের ঘুম ভাঙুক। সেই কারণেই ঘণ্টা কাঁসর বাজিয়ে তাঁদের মিছিল। মিছিল শিয়ালদহ থেকে শহরের প্রাণকেন্দ্র ধর্মতলায়। হাতে প্ল্যাকার্ড চাকরির দাবিতে। কাঁধে শবদেহবাহী খাট। এটি প্রতীক তাঁদের প্রতিদিন স্বপ্ন আর ইচ্ছার মৃত্যু। ঠিক যেমন অবস্থা রাজ্যের লক্ষাধিক শিক্ষকপদে পরীক্ষা সফল প্রার্থীদের। এরা সবাই নবম দশম থেকে একাদশ দ্বাদশ আর SLST প্রার্থী। যারা গত ১১ বছর,ক্রমশ মৃতদেহে পরিণত হচ্ছে। 

এরা সবাই ভবিষ্যতের চাকরি প্রার্থী। এঁদের ন্যায্য চাকরি ১০, ১২, ১৫, বিশ লাখে বিক্রি করে ছিলেন তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী থেকে পর্ষদের নেতারা। 

ভবিষ্যতের চাকরি প্রার্থীদের সঙ্গে মিশেছে বর্তমান চাকরিরতদের আন্দোলন। ন্যায্য ডিএ-র দাবিতে। গত এগারো বছরে এক-তৃতীয়াংশ বেতন কম পাচ্ছেন বর্তমান সরকারি কর্মচারিরা,শিক্ষক অশিক্ষক কর্মচারিরা পুর ও পঞ্চায়েতের কর্মচারিরা। ১০ মার্চ, ২০২৩ সরকারি কর্মচারিদের ধর্মঘটের দিন।

ধর্মঘট ভাঙতে হুমকি সাইন-এ ডাই বেতন কাটা সব মেনে নিয়েই ধর্মঘটে রাজ্যের আড়াই লক্ষেরও বেশি কর্মচারিরা। একের পর এক নোটিশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ধর্মঘট চলছে, সমর্থন দিয়েছে সব বিরোধী রাজনৈতিক দল। পাশে দাঁড়িয়েছে বিজেপিও। 

দুর্নীতিগ্রস্থরা কেউ জেলে কলকাতায়। কেউ তিহাড়ে। তৃণমূল পরিবারে যেখানে হাত পড়ছে সেখান থেকেই উদ্ধার হচ্ছে কোটি কোটি টাকা। যখন তখন কেউ কাউকে ৫০ লাখ টাকা ধার, ৪০ লাখের গাড়ি দিয়ে দিচ্ছে। কাঞ্চনের সঙ্গে সঙ্গে কামিনীদেরও সন্ধান মিলছে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা আদালতের নির্দেশে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

শুধু চুরি-তোলাবাজি-কাটমানি জেল হাজতের কলঙ্কিত অধ্যায় নয়। বাংলা মানুষের আন্দোলনের রাগী চেহারাও দেখছে।
আগামীর চাকরি প্রার্থী থেকে বর্তমান চাকরি প্রার্থীদের পাশাপাশি আন্দোলনের ছবিও দেখছে রাজ্য। একটাই প্রতিজ্ঞা আগামী নারী দিবসের আগেই বাংলাকে কলঙ্কিত করা নারী মুখ্যমন্ত্রীকে বিদায় জানাতেই হবে।

 

Tags:

Madhyom

protest

bangla news

Bengali news

west bengal protest

Employee Pension Scheme

protests

future

DA Protest

indigenous peoples’ protest

peoples protest against west bengal govt

bengal peoples protest against government

bengal protests

peoples

protest peoples

bengal peoples

recruitment protest

da protests

government employees’ protest

the future

future employee

future teachers

future workers

employee

employee satisfaction

employee training

government employees

employee attendance

present

present employees

present government employee

two generations

two generation

two generations are in protest

generations

two generations are in movement


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর