img

Follow us on

Tuesday, Apr 23, 2024

Nadia: নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার তৃণমূল নেতার ছেলে, শোরগোল

নদিয়ায় বিজেপি পরিবারের সঙ্গে একী করল তৃণমূল নেতার ছেলে?

img

শান্তিপুর থানা (নিজস্ব চিত্র)

  2024-03-27 15:01:47

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: নাবালিকাকে বাড়ির গোয়াল ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার (Nadia) শান্তিপুর থানার আরবান্দি এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের আরবান্দি দক্ষিণ পাড়া এলাকায়। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, নির্যাতিতা নাবালিকা বিজেপির বুথ সভাপতির ভাইঝি। তৃণমূল নেতা ছেলে রিন্টু বিশ্বাস এই অপকর্ম করেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঠিক কী ঘটনা ঘটেছে? (Nadia)

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নির্যাতিতা নাবালিকার বাবা বেঁচে নেই। মায়ের সঙ্গে থাকে সে। এক আত্মীয়কে বাড়ি পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন ওই নাবালিকার মা। বাড়িতে একা ছিল নাবালিকা। অভিযোগ, আচমকা শোওয়ার ঘরে ঢুকে নাবালিকাকে গোয়ালঘরে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন তৃণমূল নেতার ছেলে। শারীরিক নির্যাতনের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়ে নাবালিকা। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয় তার। ঘটনার পর থেকেই ওই নাবালিকার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে এবং ওই নাবালিকার শরীর থেকে অত্যাধিক রক্তক্ষরণ হতে শুরু করে। এরপর পরিবারের লোকজনেরা তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় বাদকুল্লা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। সেখানেই অবস্থার অবনতি হওয়ায় স্থানান্তরিত করে নিয়ে যাওয়া হয় নদিয়ার (Nadia) কৃষ্ণনগর শক্তিনগর হাসপাতালে। কৃষ্ণনগর শক্তিনগর হাসপাতালে ওই নাবালিকার অবস্থার অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে স্থানান্তরিত করা হয় কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে। বর্তমানে ওই নাবালিকা আশঙ্কাজনক অবস্থায় কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পরিবারের তরফ থেকে শান্তিপুর থানায় ধর্ষণের লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার ছেলে রিন্টু বিশ্বাসের বিরুদ্ধে। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে শান্তিপুর থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আত্মবিশ্বাসী রেখা পাত্র, পাচ্ছেন ওয়াই ক্যাটেগরি নিরাপত্তা!

শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা

রানাঘাট কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী জগন্নাথ সরকার বলেন, "শুধু পরিবার বিজেপি করে বলে এক নাবালিকাকে পরিকল্পিত ভাবে ধর্ষণ করেছেন তৃণমূল নেতার ছেলে। শুধু ওই অভিযুক্তই নন, তাঁর পরিবারের প্রত্যেককে গ্রেফতার করতে হবে। প্রশাসনকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।” শান্তিপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি কানাই দেবনাথ বলেন, "এখানে ধর্ষণের কোনও গল্পই নেই। ওই তরুণ-তরুণীর দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক। শুধু তৃণমূল সমর্থক বলেই যুবককে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে।”

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

bjp

Madhyom

tmc

Trinamool Congress

West Bengal

bangla news

Bengali news

Nadia

santipur


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর