img

Follow us on

Friday, Jul 19, 2024

Uttar Dinajpur: বিজেপি করায় ঘাড়ধাক্কা দিয়ে বের করে দিয়েছে তৃণমূল, শিক্ষকের পাশে দাঁড়াল ছাত্রছাত্রীরা!

তৃণমূল তাড়িয়ে দিয়েছে শিক্ষককে, ক্লাস বয়কট করে প্রতিবাদ ছাত্রছাত্রীদের

img

প্রিয় শিক্ষককে স্কুলে ফেরানোর দাবিতে ক্লাস বয়কট ছাত্রছাত্রীদের। নিজস্ব চিত্র

  2023-09-15 18:27:26

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: প্রিয় শিক্ষককে পুনরায় স্কুলে ফেরাতে এবার ক্লাস বয়কট করে আন্দোলনে নামল ছাত্রছাত্রীরা। তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বিদ্যালয়েরই অন্য শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ শিক্ষাকর্মীরা। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর (Uttar Dinajpur) জেলার চোপড়ার সোনাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত টাটু সিংহ স্মৃতি হাই স্কুলে। মূলত, বিজেপি দল করার অপরাধে বুধবার ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক ভবেশ করকে স্কুল থেকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ওই বিদ্যালয়েরই পরিচালন সমিতির সদস্য, প্রধান শিক্ষক সহ বহিরাগত কিছু তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

আন্দোলন চলবে বলে হুঁশিয়ারি

এরই প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার স্কুলগেটের সামনে অবস্থান-বিক্ষোভে বসেন ওই শিক্ষক। শুক্রবার ওই শিক্ষককে নিগ্রহ করার প্রতিবাদে এবং পুনরায় তাঁকে বিদ্যালয়ে নিয়ে আসার দাবিতে ক্লাস বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয় ছাত্রছাত্রীরা। তাদের এই দাবির পাশে দাঁড়ান ওই বিদ্যালয়েরই অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ অশিক্ষক কর্মীরা। তাঁদের দাবি, অবিলম্বে ভবেশবাবুকে বিদ্যালয়ের কাজে যোগ দেওয়াতে হবে। তা না হলে এই আন্দোলন চলবে বলে হুঁশিয়ারি দেয় ছাত্র-ছাত্রীসহ শিক্ষক শিক্ষিকারা (Uttar Dinajpur)।

কী ঘটেছে আগে?

উল্লেখ্য, ২০২১ সালে চোপড়ায় মাম্পি সিংহ নামে এক নাবালিকার মৃত্যুর ঘটনায় তোলপাড় হয়েছিল গোটা জেলা (Uttar Dinajpur)। তাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে পরিবার এবং জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। দোষীদের শাস্তির দাবিতে দফায় দফায় বিক্ষোভে নামে বিজেপি। সেই ঘটনায় পথ অবরোধ ও সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরের অভিযোগে ভবেশবাবুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরবর্তী সময়ে তাঁর সাজা ঘোষণা হয়। প্রায় ২৭ দিন জেল হেফাজতে থাকার পর গত ২৪ শে অগাস্ট ছাড়া পান ভবেশবাবু। তারপর তিনি আবার স্কুলে কাজে যোগ দেন। যদিও কাজে যোগ দেওয়ার পরও তাঁকে রেজিস্টারে সই করতে দেওয়া হচ্ছিল না বলে অভিযোগ ভবেশবাবুর। ছাত্র-ছাত্রী এবং সহকর্মীদের পাশে পেয়ে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান ভবেশবাবু।

কী বললেন প্রধান শিক্ষক?

অন্যদিকে গোটা ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রণবকুমার বারুই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, গোটা ঘটনা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে যত দ্রুত সম্ভব আইনি নিয়ম মেনে ভবেশবাবুকে বিদ্যালয়ে (Uttar Dinajpur) যাওয়ার ব্যবস্থা করবেন।

 

দেশের খবরদশের খবরসব খবরসবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ

Tags:

Madhyom

bangla news

Bengali news

Uttar Dinajpur

beloved teacher

teacher and student


আরও খবর


ছবিতে খবর