img

Follow us on

Thursday, Jul 18, 2024

Jyotipriya Mallick: “আমাকে বাঁচতে দিন”, আদালতে আর্জি বালুর, ‘‘সেলে ফিরে যান’’, জবাব বিচারকের

ফের খাট ও টেবিল দেওয়ার আর্জি জ্যোতিপ্রিয়র...

img

জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। ফাইল ছবি।

  2023-11-16 17:22:54

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: “স্যর, আমাকে বাঁচতে দিন”। আদালতে কাতর আর্জি রেশন বণ্টন কেলেঙ্কারিতে ইডির হাতে গ্রেফতার হওয়া মন্ত্রী তৃণমূলের জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের (Jyotipriya Mallick)। অসুস্থতার কথা শোনার পর মন্ত্রীমশাইকে সেলে ফিরে যেতে বলেন বিচারক। এদিনও ফের খাট ও টেবিল দেওয়ার আর্জি জানান রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

“আমাকে বাঁচতে দিন”

বৃহস্পতিবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে হাজিরা ছিল জ্যোতিপ্রিয়র। অসুস্থতার কারণে এদিন সশরীরে আদালতে হাজিরা দিতে পারেননি তিনি। ভার্চুয়ালি হাজিরা দেন মন্ত্রী। তখনই জ্যোতিপ্রিয়কে কুশল সংবাদ জিজ্ঞাসা করেন বিচারক। তখনই মন্ত্রিমশাইয়ের কাতর আবেদন, “আমাকে বাঁচতে দিন।” তার পরেই তাঁকে সেলে ফিরে যেতে বলেন বিচারক। জ্যোতিপ্রিয় নিজেকে আইনজীবী দাবি করায় বিচারক জানান, তিনি নিশ্চয়ই জেল ও কোর্টের বিষয়ে অবগত।

প্রেসিডেন্সি জেলে জ্যোতিপ্রিয় 

রেশন বণ্টন কেলেঙ্কারিতে ২৬ অক্টোবর রাতে ইডি গ্রেফতার করেছিল জ্যোতিপ্রিয়কে (Jyotipriya Mallick)। আদালতে তোলা হলে দশ দিনের ইডি হেফাজতের নির্দেশ শুনে জ্ঞান হারান মন্ত্রিমশাই। ভর্তি করা হয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে। পরে জ্যোতিপ্রিয় সুস্থ বলে ছেড়ে দেয় হাসপাতাল। এবার হেফাজতে নেয় ইডি। বর্তমানে উত্তর ২৪ পরগনার এই তৃণমূল নেতা রয়েছেন প্রেসিডেন্সি জেলে। এই জেলেই রয়েছেন রাজ্যের আর এক প্রাক্তন মন্ত্রী তৃণমূলের পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও।

আরও পড়ুুন: বালিশ-চাদরের পর এবার মোবাইল দাও! বালুর বায়নাক্কায় অতিষ্ঠ জেল কর্তৃপক্ষ

এদিন ভার্চুয়ালি জ্যোতিপ্রিয়কে তোলা হয় আদালতে। শুনানি শুরু হতেই বিচারক প্রশ্ন করেন, “কী সমস্যা হচ্ছে আপনার? যেখানে আপনি বসে রয়েছেন, আপনার কী সমস্যা হচ্ছে? সমস্যা হলে ওঁকে নিয়ে যেতে পারেন।” এর পরেই জ্যোতিপ্রিয় বলেন, “৩৫০ সুগার। হাত-পা কাজ করছে না। বাঁচতে দিন।” আইনজীবী পরিচয় দিয়ে জ্যোতিপ্রিয় বলেন, “আমি আইনজীবী। হাইকোর্ট ও ব্যাঙ্কশাল কোর্টের সদস্য। পায়ের সমস্যা হচ্ছে। ৩৫০-র বেশি সুগার। হাত-পা কাজ করছে না। স্যর, আমাকে বাঁচতে দিন।” তখনই তাঁকে তাঁর এক্তিয়ারের কথা স্মরণ করিয়ে দেন বিচারক। তিনি বলেন, “আপনার অসুবিধা হলে সেলে চলে যেতে পারেন।” জ্যোতিপ্রিয়র (Jyotipriya Mallick) খাট ও টেবিল দেওয়ার আবেদনের প্রত্যুত্তরে বিচারক বলেন, “সেটা জেলের এক্তিয়ার।”

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের Facebook, Twitter এবং Google News পেজ।

 

Tags:

tmc

bangla news

Bengali news

jyotipriya mallick

Ration Case

 ration distribution case

  madhyom


আরও খবর


ছবিতে খবর