img

Follow us on

Thursday, Jun 20, 2024

Siliguri: শিলিগুড়ির মেয়রের ওয়ার্ডে চলছে মদ, জুয়ার ঠেক, প্রতিবাদ করলেই হামলা, কী করছে পুলিশ?

শিলিগুড়ির মেয়রের ওয়ার্ডে রমরমিয়ে মদ,জুয়ার ঠেক চলায় আতঙ্কে এলাকাবাসী

img

মদের ঠেকের প্রতিবাদ করে আক্রান্তরা (নিজস্ব চিত্র)

  2023-09-07 19:39:09

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: শিলিগুড়িতে খোদ মেয়র গৌতম দেবের ওয়ার্ডেই চলছে রমরমা মদ,জুয়ার আসর। শিলিগুড়ি (Siliguri) পুরসভার ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যসেন কলোনি সহ বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে সন্ধ্যা হতেই পাড়ায় পাড়ায় মদ,জুয়ার আড্ডা বসে। ফলে, সন্ধ্যা থেকে এলাকার সাধারণ মানুষ বিশেষ করে মহিলারা রাস্তায় বের হতে ভয় পান। চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছেন এলাকার মানুষ। সম্প্রতি, মদের ঠেক চালানোর প্রতিবাদ করতে গিয়ে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন এক এলাকার বেশ কিছু মানুষ। আর এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলার শিলিগুড়ির গৌতম দেব হওয়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

মেয়রের ওয়ার্ডে মদ,জুয়ার আসর নিয়ে কী বললেন স্থানীয় বাসিন্দারা?

সম্প্রতি মাটিগাড়ায় নাবালিকা ছাত্রীর খুনের ঘটনায় তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। একের পর এক অপরাধ ঘটে চলায় তিনি শিলিগুড়ি (Siliguri) পুলিশ কমিশনারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন,  শিলিগুড়ি শহরে  ড্রাগ তথা মাদকের রমরমা কারবার চলছে।  পুলিশ কমিশনার ঠাণ্ডা ঘরে বসে বেতন নিচ্ছেন। সেজন্যই শিলিগুড়ি শহরের এইঅবস্থা। রাজ্য সভাপতির অভিযোগের পরও টনক নড়েনি পুলিশ প্রশাসনের। মেয়রের ওয়ার্ডে রমরমিয়ে চলছে মদ, জুয়ার আসর। বিজেপির রাজ্য সভাপতি অভিযোগ যে ঠিক ছিল তা ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের এই ঘটনাতেই প্রমাণিত হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, খোদ মেয়রের ওয়ার্ডে যদি এরকম অবস্থা চলে তাহলে না জানি অন্য এলাকায় কী চলছে? নাবালিকাকে খুনের ঘটনার পরও পুলিশের কোনও হেলদোল নেই।

কী বললেন মেয়র?

দুষ্কৃতীদের হাতে ওয়ার্ডবাসী আক্রান্ত হওয়া প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার মেয়র গৌতম দেব বলেন, এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশকে। একজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শিলিগুড়ি (Siliguri) এলাকায় এই ধরনের ঘটনা বরদাস্ত করা হবে না। তবে, এনজেপি  লাগোয়া এলাকায় এ ধরনের ঘটনা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অন্যতম কারণ রেলের পরিত্যক্ত কোয়ার্টার।

কী বললেন আরপিএফের এক আধিকারিক?

এ ব্যাপারে এলাকার নাগরিকরা এনজেপিতে এডিআরএমকে লিখিতভাবে জানিয়েছিলেন। এনজেপি'-র আরপিএফের আইসি এসকে খান বলেন, রেলের পরিত্যক্ত কোয়ার্টারগুলি যেখানে রয়েছে সেখানকার আইন-শৃঙ্খলার দায়িত্ব দেখার দায়িত্ব জেলা পুলিশের। কাজেই এক্ষেত্রে রেলের করণীয় কিছু নেই।

 

দেশের খবরদশের খবরসব খবরসবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

Siliguri

bangla news

Bengali news


আরও খবর


ছবিতে খবর