img

Follow us on

Tuesday, Apr 23, 2024

Jalpaiguri Tornado: ত্রাণ বন্টনেও আমরা ওরা! ক্ষুব্ধ জলপাইগুড়ির ক্ষতিগ্রস্তরা

ত্রাণেও আমরা ওরার অভিযোগ!

img

জলপাইগুড়ির ঝড় (সংগৃহীত ছবি)

  2024-04-03 18:12:08

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: রবিবার ঝড়ের পর মুখ্যমন্ত্রী তড়িঘড়ি জলপাইগুড়ির (Jalpaiguri Tornado) উদ্দেশে রওনা দিলেও এখনও সকলের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা হয়নি বলে অভিযোগ। বাছাই করা লোকেদের ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে। ত্রাণের ক্ষেত্রে পছন্দের মুখ না হলে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। প্রসঙ্গত জলপাইগুড়িতে কয়েক মিনিটের ঝড়ে বিপর্যস্ত হয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। অথচ ত্রাণ এসেছে মাত্র ৮০০ জনের জন্য। স্বাভাবিকভাবেই ক্ষোভ বাড়ছে এলাকায়। প্রসঙ্গত, জলপাইগুড়ি জেলায় ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষ চরম অনিশ্চয়তায় দিন কাটাচ্ছেন। তাদের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঘর বাড়ি। স্বাভাবিকভাবেই মাথায় আকাশ ভেঙে পড়েছে তাদের। কিন্তু প্রশাসনের কোনো হেলদোল নেই বলেই অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।

বার্নিশের কালীবাড়ি এলাকায় ত্রাণ দিতে পৌঁছেছিলেন জেলাশাসক শামা পারভিন

জানা গিয়েছে জলপাইগুড়ির (Jalpaiguri Tornado) বার্নিশের কালীবাড়ি এলাকায় ত্রাণ দিতে পৌঁছেছিলেন জেলাশাসক শামা পারভিন। জেলাশাসকের উপস্থিতিতে কয়েকজনকে ত্রাণ দেওয়া হলেও বাকিদের ফিরে যেতে হয়েছে খালি হাতেই। বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের বক্তব্য, “যেটুকু ত্রাণ দেওয়া সম্ভব তা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশ আসলে আগামী দিনে আরো মানুষের কাছে সাহায্য পৌঁছে দেওয়া হবে।”রবিবার কয়েক মিনিটের ঝরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ ক্ষতিগস্ত হয়েছেন। শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। চারজনের মৃত্যু হয়।

প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং আধিকারিকদের ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন

প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং আধিকারিকদের ক্ষতিগ্রস্তদের (Jalpaiguri Tornado) পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন। তার পরেও সকল ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য দেওয়া সম্ভব হয়নি। অনেকেই খোলা আকাশের নিচে দিন কাটাচ্ছেন। কারও বাড়ির ছাদ উড়ে গিয়েছে। কারো ভেঙেছে দেওয়াল। কারো আবার গোটা ঘরটাই ঝড়ের গ্রাসে উধাও হয়ে গেছে। বহু এলাকায় খাওয়ার জলের ব্যবস্থাটুকু নেই। মুখ্যমন্ত্রী নিজে তড়িঘড়ি উড়ে গেলেও পরিদর্শন ছাড়া আর কী কাজ হয়েছে জানতে চান জলপাইগুড়ি মানুষ।

ত্রাণ বণ্টন নিয়েও দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে

এদিকে ত্রাণ বণ্টন নিয়েও দুর্নীতির (Jalpaiguri Tornado) অভিযোগ উঠছে। স্থানীয় এক বাসিন্দার কথায়, “যাদের ক্ষতি হয়নি তারা সাহায্য পাচ্ছে। অথচ যাদের ক্ষতি হয়েছে তাদের কপালে কিছুই জুটছে না। মুখ্যমন্ত্রী এসে দেখে যান এখানে কী চলছে।” প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ৮০০ জনের জন্য ত্রাণ এসেছে তবে আগামীতে আরও বহু মানুষের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হবে বলে জলপাইগুড়ি জেলা প্রশাসন আশ্বাস দিয়েছে।

ক্ষোভের মুখে বিডিও অফিসের কর্মীরা 

জলপাইগুড়ির দক্ষিণ সুকান্ত নগরে ত্রাণ দিতে গিয়ে ক্ষোভের মুখে পড়ে যান বিডিও অফিসের কর্মীরা। সেখানে শতাধিক মানুষ ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও মাত্র ছয়জনের জন্য ত্রাণ নিয়ে পৌঁছেছিলেন বিডিও অফিসের কর্মীরা। স্বাভাবিকভাবেই স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয় যা আছড়ে পড়ে বিডিও অফিসের কর্মীদের উপরে। ত্রাণের দাবিতে রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে বিক্ষোভ দেখায় এবং পথ অবরোধ করে স্থানীয় গ্রামবাসীরা। তাদের অভিযোগ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে না।

বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ অনন্ত মহারাজ কী বলছেন?

অন্যদিকে জলপাইগুড়িতে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ অনন্ত মহারাজ, “তার অভিযোগ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা সরকারি সাহায্য পাচ্ছে না। সরকারি সাহায্যের ক্ষেত্রে মুখ দেখে সাহায্য দেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ যারা দায়িত্বে রয়েছেন তাঁরা পছন্দের মানুষদের ত্রাণ এবং সরকারি সাহায্য পৌঁছে দিচ্ছেন এমনটাই অভিযোগ বিজেপি সাংসদের। তিনি রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতিকে চিঠি লিখবেন বলে জানিয়েছেন।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

 

 

Tags:

Madhyom

bangla news

Bengali news

natural disasters

Jalpaiguri Tornado

Relief Distribution

Tornadoes

Extreme weather events

Jalpaiguri district

Relief efforts

Community resilience


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর