img

Follow us on

Tuesday, May 21, 2024

Gram Panchayat Election: খেজুরিতে পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনে এবার কেন্দ্রীয় বাহিনী! নির্দেশ আদালতের

খেজুরিতে পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনে কী নির্দেশ দিল আদালত, জানেন কী?

img

কলকাতা হাইকোর্ট (নিজস্ব চিত্র)

  2023-09-09 12:02:54

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরিতে পঞ্চায়েতের (Gram Panchayat Election) বোর্ড গঠনে বোমাবাজির অভিযোগ নিয়ে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করল কলকাতা হাইকোর্ট। পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারকে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিলেন হাইকোর্টের বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। একই সঙ্গে আদালতের নির্দেশ, পরবর্তী বোর্ড গঠনের সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীর  নিরাপত্তায় করতে হবে বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া। রাজ্য অবিলম্বে এর জন্য কেন্দ্রের কাছে সাহায্য চাইবে। আদালতের আরও নির্দেশ, নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন ওই জেলার পুলিশ সুপার। আগের দিনের চাইতে বেশি সংখ্যায় রাজ্য পুলিশের কর্মী মোতায়েন করতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ওই বোর্ড গঠনের কাজ হবে বিডিও অফিসের পরিবর্তে জেলাশাসকের দফতরে।

কী নির্দেশ দিল আদলত?

৫ সেপ্টেম্বর খেজুরিতে পঞ্চায়েতের (Gram Panchayat Election) স্থায়ী সমিতি গঠন নিয়ে যে ঘটনা ঘটেছে, তাতে তিনটি মামলা হয় হাইকোর্টে। কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী সেদিন বিডিও অফিসে ভোট দিতে গিয়েছিলেন। তখনই শিশিরের গাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের হয় হাইকোর্টে। শিশিরের গাড়িতে যথেচ্ছ বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। এবার ওই মামলায় বিস্ফোরক আইন যুক্ত করার নির্দেশ দিলেন বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। মামলার শুনানিতে শিশিরের আইনজীবীর মোবাইল ফোনে বোমাবাজির ফুটেজ দেখেন বিচারপতি। এরপরই রাজ্যের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'আপনাদের কি মনে হয় না যে, আদালতের নির্দেশ অমান্য করা হয়েছে? এখানে তো আদালত মামলাকারীদের নিরাপত্তার নির্দেশ দিয়েছিল। মামলাকারীরা যদি এফআইআর দায়েরের ক্ষেত্রে কোনও ভুল করেও থাকেন, তবে পুলিশ কী করছিল? তিনি আরও বলেন, 'আদালতকে বোকা ভাবার কোনও কারণ নেই। যেখানে মানুষের প্রাণ সংশয়ে আছে, সেখানে পুলিশের এই ভূমিকা কেন?' রাজ্যের পক্ষ থেকে জানানা হয়, ঘটনার দিন ২৫০ জন পুলিশ কর্মী মোতায়েন ছিল। তবে, তারা বাইরে ছিল। বিডিও অফিসের ভিতরে গন্ডগোল হয়েছে। বিচারকের প্রশ্ন, পর্যাপ্ত পরিমাণে পুলিশ মোতায়েন থাকা সত্ত্বেও ঘটনার মোকাবিলা করা গেল না কেন? তাহলে তাদের বাইরের বাহিনীর সাহায্য প্রয়োজন।

খেজুরিকাণ্ডে গ্রেফতারি নিয়ে আদালতে কী জানাল রাজ্য?

শিশিরের সঙ্গে পঞ্চায়েত নির্বাচনের (Gram Panchayat Election) সময় নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী খুকুমণি মণ্ডল। যেহেতু বিস্ফোরণ হয়েছে, সেই কারণে এই মামলার তদন্তের অধিকার রাজ্যের নেই বলে দাবি করেন কেন্দ্রের আইনজীবী। রাজ্য জানায়, মোট ৯ জন গ্রেফতার হয়েছে।

 

দেশের খবরদশের খবরসব খবরসবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

High Court

bangla news

Bengali news

gram panchayat election

khejuri


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর