img

Follow us on

Monday, Apr 22, 2024

Anubrata Mondal: মধ্যরাতে নাটকীয় শুনানি! ১০ মার্চ পর্যন্ত ইডি হেফাজতের নির্দেশ অনুব্রতকে

Anubrata Mondal: ৩ দিনের ইডি হেফাজতেও নিরুত্তর অনুব্রত...

img

অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)

  2023-03-08 09:26:34

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: অবশেষে নাটকীয় শুনানি পর্বের শেষ হল মঙ্গলবার মধ্যরাতে। গতকাল গরুপাচার মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে (Anubrata Mondal) রাজধানীতে নিয়ে যাওয়া এবং শুনানি নিয়ে টানটান নাটক চলে। এই মামলার এবং হেভিওয়েট নেতার গুরুত্ব অনুধাবন করেই রাতে বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতির ভার্চুয়াল শুনানি করা হয়। কিন্তু পরে রাত দেড়টা নাগাদ সশরীরে দিল্লির বিচারকের বাড়িতেই হাজিরা দিতে হয় অনুব্রত মণ্ডলকে। তার পর বিচারকের বাড়িতেই মাঝরাত অবধি চলে শুনানি পর্ব। দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালতের বিচারক রাকেশ কুমার রায় দেন আগামী ১০ মার্চ অবধি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর হেফাজতেই থাকবেন কেষ্ট। তবে ৩ দিন ইডি হেফাজতের নির্দেশের পরেও এ প্রসঙ্গে নিরুত্তর থেকেছেন অনুব্রত মণ্ডল।

বিচারকের বাড়িতে অনুব্রতের শুনানি

গতকাল অনুব্রতকে নিয়ে রাজধানী পৌঁছে যাওয়ার পরেই বিচারক রাকেশ কুমারের এজলাসে শুনানির আবেদন জানায় ইডি। কিন্তু বুধবার হোলি উপলক্ষে আদালত ছুটি। তাই মঙ্গলবার রাতেই তারা রাকেশ কুমারের এজলাসে ভার্চুয়ালি হাজির করায় অনুব্রতকে। রাত ১১টা ২০ নাগাদ শুরু হয় সেই শুনানি। কিন্তু আধঘণ্টার মধ্যেই সেই শুনানি মাঝপথে স্থগিত হয়ে যায়। সিদ্ধান্ত হয়, দু’পক্ষই যাবে বিচারকের বাড়ি। শেষে রাত ১টা নাগাদ অশোকবিহারে বিচারক রাকেশ কুমারের বাড়িতে অনুব্রতকে নিয়ে ইডি আধিকারিকেরা যান। অনুব্রতের আইনজীবীও সঙ্গে ছিলেন। বিচারকের সামনে সশরীরে হাজির করানো হয় অনুব্রতকে। প্রথমে অনুব্রতকে ১৪ দিনের হেফাজতে চেয়ে আবেদন করেছিলেন কেন্দ্রীয় সংস্থার আইনজীবী। তাতে আপত্তি জানান অনুব্রতের আইনজীবী মুদিত জৈন। শেষপর্যন্ত তাঁকে আগামী ১০ মার্চ ইডি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১০ মার্চ সকাল ১০টায় আবার ইডিকে রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টে অনুব্রতকে হাজির করাতে হবে।

ইডির আইনজীবীর বক্তব্য

১১টা ২০ নাগাদ ভার্চুয়ালি শুনানির শুরুতেই বিচারক রাকেশ কুমার বলেন, “অনেক দিন পরে ভার্চুয়াল মাধ্যমে যোগ দিলাম। তাই একটু সমস্যা হচ্ছে।” তবে অনুব্রতের আইনজীবী মুদিত বলেন, “এই মামলায় ভার্চুয়াল হাজিরা হওয়া উচিত নয়। সশরীরে হাজিরা দেওয়ার কথা।” ওই আইনজীবীর অভিযোগ, মক্কেলের সঙ্গে তাঁর কোনও কথা বলা হয়নি। তিনি কথা বলার সুযোগই পাননি। অনুব্রতের আইনজীবী এ-ও জানান, মঙ্গলবার টানা সফর করতে হয়েছে তাঁর মক্কেলকে। তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। অনুব্রত অসুস্থ। তাঁকে সময় দেওয়া হোক। এখন হাজিরা বাতিল করা হোক বলে আর্জি জানান মুদিত।

আরও পড়ুন: দিল্লিতে অনুব্রত মণ্ডল কেমন থাকবেন জানালেন দিলীপ ঘোষ

এরপরেই ইডির আইনজীবীর সওয়াল, “করোনা পরিস্থিতিতে অনেক সময় ভার্চুয়াল পদ্ধতি কাজে লাগানো হয়েছে। অনুব্রতের আইনজীবীই তো সশরীরে হাজির হননি!” বিচারকের উদ্দেশে ইডির আইনজীবী বলেন, “তা হলে ৩০ মিনিট সময় দিন। অনুব্রতকে নিয়ে আপনার বাড়ি আসছি।” এর পরেই ঠিক হয় অনুব্রতকে নিয়ে বিচারক রাকেশ কুমারের বাড়িতে যাবে ইডি। শেষ হয়ে যায় ভার্চুয়াল শুনানি।

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

anubrata mondal

Enforcement Directorate

Cattle smuggling case


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর