img

Follow us on

Tuesday, May 21, 2024

Lakshadweep Tourism: দ্রুত গতিসম্পন্ন ফেরি পরিষেবা চালু লাক্ষাদ্বীপ-ম্যাঙ্গালোরের মধ্যে, সময় বাঁচবে ৫ ঘণ্টা

'পাড়ালি' নামের ফেরি পরিষেবা চালু হল লাক্ষাদ্বীপ-ম্যাঙ্গালোরের মধ্যে, খুশি পর্যটকরা 

img

প্রতীকী ছবি

  2024-05-04 16:50:02

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: দ্রুত গতির ফেরি পরিষেবা চালু হল লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep Tourism) এবং ম্যাঙ্গালোরের মধ্যে। এই ফেরি পরিষেবার পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে 'পাড়ালি'। পরিষেবা চালুর ফলে যাত্রী এবং পর্যটকদের সময় অনেকটাই বাঁচবে। যাতায়াতের সময় কমবে পাঁচ ঘন্টা। ৩ মে শুক্রবারই নতুন ফেরি পরিষেবার উদ্বোধন হয়। ১৬০ জন যাত্রীকে নিয়ে লাক্ষাদ্বীপ থেকে ম্যাঙ্গালোরের উদ্দেশে পাড়ি দেয় পাড়ালি। পৌঁছে যায় মাত্র সাত ঘণ্টায়। সাধারণভাবে আগে এই যাত্রাপথে সময় লাগত প্রায় ১৩ ঘণ্টার কাছাকাছি। পরিষেবা চালু হতে শুক্রবারই যাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ লক্ষ্য করা গিয়েছে।

'দ্য লাক্ষাদ্বীপ আইল্যান্ড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট অথরিটি' 

প্রসঙ্গত মোদি সরকার লাক্ষাদ্বীপকে (Lakshadweep Tourism) পর্যটনে ঢেলে সাজিয়েছে। কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের অধীনে তৈরি করা হয়েছে 'দ্য লাক্ষাদ্বীপ আইল্যান্ড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট অথরিটি' এই সংস্থার উদ্যোগেই ম্যাঙ্গালোর থেকে লাক্ষাদ্বীপ পর্যন্ত পর্যটকদের জন্য জলপথে ফেরি সার্ভিস চালু হল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাক্ষাদ্বীপ পরিভ্রমণ করেন চলতি বছরের শুরুতেই। তারপর থেকেই সেখানকার প্রশাসন ঢেলে সাজিয়েছে ভারতের এই দ্বীপের পর্যটন ব্যবস্থাকে। মূল ভূখণ্ড কোচি এবং বেঙ্গালুরর সঙ্গে লাক্ষাদ্বীপকে জুড়তে নানা রকমের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম হল এই দ্রুতগতির ফেরি সার্ভিস চালু। প্রসঙ্গত পর্যটন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে ইতিমধ্যে শুরু করা হয়েছে, পশ্চিমঘাটে ইকো ট্যুরিজম, শিক্ষামূলক ভ্রমণ, স্বাস্থ্য বিষয়ক ভ্রমণ ইত্যাদি।

আরও পড়ুন: “যোগ্য অযোগ্য বাছাই সম্ভব”, শীর্ষ আদালতে জানাল কমিশন, নজর সোমবারের শুনানিতে

৩৬ দ্বীপের সমাহার লাক্ষাদ্বীপ 

৩৬ দ্বীপের সমাহার হল লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep Tourism)। ৩২ বর্গ কিলোমিটারের জুড়ে অবস্থান করছে এই দ্বীপগুলি। এর আশেপাশের সমুদ্র সীমা হল ৪,২০০ বর্গ কিলোমিটার। প্রকৃতিপ্রেমিক, অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় মানুষদের জন্য লাক্ষাদ্বীপ প্রতিনিয়তই আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছে। লাক্ষাদ্বীপে মিলছে নানারকমের পর্যটনের সুবিধাও। ভ্রমণকারীর এখানে স্কুবা ডাইভিং সমেত অন্যান্য ওয়াটার স্পোর্টসেরও সুবিধা পাবেন।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

bangla news

Bengali news

The Lakshadweep Islands Tourism Development Authority (LITDA)

Central Tourism Ministry

Mangalore-Lakshadweep tourist

High-speed ferry


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর