img

Follow us on

Tuesday, May 21, 2024

Hacking Risks: একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার একাধিক অ্যাকাউন্টে? বাড়ে হ্যাকিং-এর ঝুঁকি, জানুন বিস্তারিত

Password Reuse: কীভাবে নিজের গুরুত্বপূর্ণ পাসওয়ার্ডগুলিকে সুরক্ষিত রাখবেন?

img

প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

  2024-05-07 15:47:10

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: একাধিক অ্যাকাউন্ট এবং অ্যাপসের জন্য একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা- এটা অনেকেরই অভ্যাস রয়েছে। কেউ কেউ নিজেদের সমস্ত অ্যাকাউন্টগুলিতে (Hacking Risks) একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন। সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, যা একেবারেই নিরাপদ নয়। এতে সুযোগ পায় সাইবার অপরাধীরা। শক্তিশালী পাসওয়ার্ড দেওয়ার ক্ষেত্রে একেবারেই যাঁরা সচেতন নন তাঁরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন পরপর নম্বর দিয়ে ১ থেকে ৬ পর্যন্ত নম্বর অথবা ১ থেকে ৯ পর্যন্ত নম্বর। এগুলি হ্যাক করতে সাইবার হ্যাকারদের বেশি পরিশ্রমও করতে হয় না। নিমেষেই তারা করে ফেলতে পারে। সাধারণভাবে সময়ের সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রযুক্তির ব্যবহারও বেড়ে চলেছে। আজ থেকে ১৫ বছর আগে স্মার্টফোনের ব্যবহার খুবই কম ছিল। কিন্তু বর্তমান সময়কালে স্মার্টফোনের ব্যবহার এত বেশি বেড়েছে যে বলা চলে, প্রত্যেকের হাতেই বর্তমানে ওই ফোন রয়েছে। এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে বিভিন্ন অ্যাপস। বর্তমানকালে ব্যক্তিগত তথ্য আদান-প্রদান, যে কোনও সরকারি কাজ অথবা আর্থিক লেনদেন অনলাইনে করতেই বেশি পছন্দ বোধ করেন অনেকে। এক্ষেত্রে আলাদা আলাদা অ্যাপস এর জন্য তাদের পাসওয়ার্ডের প্রয়োজন হয়। একই পাসওয়ার্ড একাধিক অ্যাপসে ব্যবহার করতে থাকেন অনেকে।

পাসওয়ার্ড হিসেবে জন্ম তারিখ, মাস - এ সমস্ত কিছুই বেশি ব্যবহার করেন অনেকে

সাইবার বিশেষজ্ঞরা (Hacking Risks) বলছেন, একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার না করে আলাদা আলাদা অ্যাপস এবং অ্যাকাউন্টের জন্য আলাদা আলাদা শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করলে সাইবার নিরাপত্তা সবথেকে বেশি হয়। তাই পাসওয়ার্ড তৈরির সময় বেশ কিছু কৌশল অবলম্বন করতে বলছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। এর পাশাপাশি পাসওয়ার্ড এর ব্যবহার করার সময় থাকতে হবে সতর্ক। সাধারণভাবে যে সমস্ত পাসওয়ার্ড ছোট এবং সহজে মনে রাখার জন্য তৈরি করা হয় সেগুলোই সাইবার হ্যাকাররা সহজে হ্যাক করতে পারেন। মনে রাখতে হবে, অনেকেই পাসওয়ার্ড তৈরি করার সময় নিজেদের জন্ম তারিখ, মাস, সন্তানের নাম - এ সমস্ত কিছুই বেশি ব্যবহার করেন। ফেসবুক প্রোফাইল বা ইন্টারনেট (Hacking Risks) থেকে এগুলি জেনে নেওয়া খুবই সহজে যায়। তাই সে ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড হ্যাক করা সহজ হয়ে যায়। 

আমরা এবার আলোচনা করব কীভাবে আপনার পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত থাকবে?

- আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্টের (Hacking Risks) জন্য আলাদা আলাদা পাসওয়ার্ড:  সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, সবসময় আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্টের জন্য আলাদা পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা উচিত।
 
- কোনও নির্দিষ্ট প্যাটার্ন থাকবে না: আপনার পাসওয়ার্ডগুলি সর্বদাই এলোমেলোভাবে সাজানো উচিত। নির্দিষ্ট সংখ্যা দিয়ে যখনই আপনি পাসওয়ার্ড করবেন, তখনই তা সরল হয়ে যায়। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় ১২৩৪৫৬ অথবা abcd বা আপনার নাম, আপনার সন্তানের নাম ইত্যাদি। তাই একই ধরনের কিছু ব্যবহার না করা এবং সমস্ত কিছু সংমিশ্রণ থাকা দরকরা পাসওয়ার্ডে উদাহরণস্বরূপ 85%#₹@abkl&?*%#90. 

- পাসওয়ার্ড যেন লম্বা হয়: সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন পাসওয়ার্ড যখন ছোট হয় তখন তা হ্যাকারদের হ্যাক করতে খুবই সুবিধা হয়। কিন্তু পাসওয়ার্ড বড় হলে হ্যাক করার সম্ভাবনাও কমতে থাকে। তাঁদের মতে পাসওয়ার্ড ১১ থেকে ১২ ক্যারেক্টারের মধ্যে ন্যূনতমভাবে হওয়া উচিত। ১৫ ক্যারেক্টার করতে পারলে সবথেকে ভালো।

- বড় এবং জটিল পাসওয়ার্ড: সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, পাসওয়ার্ড যত বড় এবং জটিল হবে ততই নিরাপত্তা বাড়বে এবং পাসওয়ার্ড এর মধ্যে বেশিরভাগ স্পেশাল ক্যারেক্টার ব্যবহার করতে পারলে সবথেকে ভালো হবে।

- পাসওয়ার্ডকে নিরাপদে সংরক্ষিত করে রাখতে হবে: মনে রাখতে হবে আপনার পাসওয়ার্ড আপনার ব্যক্তিগত তথ্য সমেত অর্থনৈতিক লেনদেনের ক্ষেত্রেও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই এক্ষেত্রে পাসওয়ার্ড লিখে রাখা যেতে পারে তবে লিখে রাখা পাসওয়ার্ড চুরি গেলে পরে সে ক্ষেত্রেও বিপত্তির আশঙ্কাও থাকে। তাই কীভাবে পাসওয়ার্ড সব থেকে ভালোভাবে সংরক্ষিত রাখা যায়? এক্ষেত্রে সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, encrypted cloud server- তা সংরক্ষিত রাখতে।

- নির্দিষ্ট সময় পর পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করা: নির্ধারিত সময় পর পর পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করা হলে হ্যাকারের (Hacking Risks) পক্ষে তা শনাক্ত করা কঠিন হবে। এজন্য পাসওয়ার্ডের আগে-পরে সাল যুক্ত করা যেতে পারে। প্রতি বছর সাল পরিবর্তন করা যাবে।

এবার আমরা জেনে নেব, একই পাসওয়ার্ড একাধিক বার ব্যবহার করলে কী কী বিপত্তি ঘটতে পারে?

সম্প্রতি একটি গবেষণা তে দেখা গিয়েছে, ৫১ শতাংশ পাসওয়ার্ডই পুনরায় ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এটা যে বিপজ্জনক তা আগেই আমরা আলোচনা করেছি। পাসওয়ার্ডের পুনরায় ব্যবহার কতটা ঝুঁকিপূর্ণ তা এবার আমরা আলোচনা করব।

- সহজেই হ্যাক করা যায়: এটা আগেই আমরা আলোচনা করেছি যে পাসওয়ার্ড একই ব্যবহার করলে তা সহজেই হ্যাকাররা হ্যাক করে ফেলতে পারে।

- একাধিক অ্যাকাউন্ট সহজেই হ্যাক করা যাবে: কোনও সাইবার হ্যাকার যদিও বা একটি অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড হ্যাক করে ফেলেন, তাহলে তা দিয়ে আপনার আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্টগুলি হ্যাক করা সহজ হয়ে উঠবে।

- অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতির সম্ভাবনা: সাধারণভাবে হ্যাকাররা পাসওয়ার্ড হ্যাক করে থাকে নিজেদের কোনও প্রোপাগান্ডাকে রটানোর জন্য। এর পাশাপাশি অর্থনৈতিকভাবে প্রতারণা করার জন্য। কোনওভাবে পাসওয়ার্ড হ্যাক হলে ব্যাঙ্কের যাবতীয় ইনফরমেশন হ্যাকারদের কাছে চলে যায়।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

bangla news

Bengali news

Hacking Risks

Password Reuse

cybersecurity

cybersecurity problems

cybersecurity protection


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর