img

Follow us on

Saturday, Jul 13, 2024

France Election 2024: ফ্রান্সের কুর্সি দখলে এগিয়ে বামপন্থীরা, অশান্তির আগুন স্যেন নদীর পাড়ে

Riots: দ্বিতীয় দফার ভোটে এগিয়ে বামপন্থীরা, অগ্নিগর্ভ ফ্রান্স, বিপদ বাড়ল ম্যাক্রঁর!...

img

ফ্রান্সে অশান্তির আগুনের খণ্ডচিত্র।

  2024-07-08 13:21:57

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই অশান্ত ফ্রান্স (France Election 2024)। দ্বিতীয় দফার নির্বাচন হয় ৭ জুলাই, রবিবার। সেই নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী পদে জয়ের পথে বামপন্থীরা। কার্যত তার পরেই অশান্ত (Riots) হয়ে ওঠে দেশ। রাজধানী প্যারিস-সহ দেশের একাধিক শহরে ঘটে অগ্নিসংযোগের ঘটনা। বিক্ষোভ সামাল দিতে নামানো হয় বাহিনী। জনতার সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন পুলিশ কর্মীরা। পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা ছোড়া হয়। উন্মত্ত জনতাকে ছত্রখান করতে কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটায় পুলিশ।

জয়ী বামেরা (France Election 2024)

ফ্রান্সে প্রথম দফার নির্বাচনে এগিয়ে ছিলেন দক্ষিণপন্থীরা। ভোট বিশেষজ্ঞরাও মনে করেছিলেন, এবার ফ্রান্সের রশি থাকবে ডানপন্থীদের হাতে। যদিও রবিবার দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের ফল বের হলে দেখা যায়, বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছে বামেরা। ফ্রান্সের পার্লামেন্টে আসন রয়েছে ৫৭৭টি। সরকার গড়তে প্রয়োজন ২৮৯টি আসন। ফল ঘোষণার পর দেখা যায়, জয়ী হয়েছে বামপন্থী জোট এনএফপি। তবে নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা পায়নি তারা। এনএফপির পরেই রয়েছে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রঁর মধ্যপন্থী জোট এনএস। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে উগ্র দক্ষিণপন্থী দল আরএন।

অশান্তির আগুন ফ্রান্সে

কোনও একটি দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় ফ্রান্সে হতে চলেছে হ্যাং পার্লামেন্ট বা ত্রিশঙ্কু। ফ্রান্সের (France Election 2024) এই তিন দল অতীতে এক সঙ্গে সরকার চালিয়েছে, এমন নজির নেই। তাই ঠিক কী হবে, তা নিয়ে আগাম কিছু বলতে পারছেন না ফ্রান্সের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরাও। তবে যেহেতু বামপন্থারী সব চেয়ে বেশি আসন পেয়েছে, তাই তাদের নেতৃত্বেই গঠিত হতে পারে সরকার। এই আশঙ্কা থেকেই দেশটিতে জ্বলছে অশান্তির আগুন।

আর পড়ুন: বোসের গায়ে ‘কালির ছিটে’! দুই পুলিশ কর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

ভারতের মতো ফ্রান্সেও আরএনকে ঠেকাতে জোট গড়ে সোশ্যালিস্ট, পরিবেশবাদী, কমিউনিস্ট এবং কট্টর বামপন্থী দল এলএফআই। জোটের নাম হয় ‘এনএফপি’। নির্বাচনের আগে এই দলগুলো সব সময় একে অন্যের সমালোচনায় মুখর থাকত। দক্ষিণপন্থীদের সরকারে আসা রুখতেই জোট বাঁধে তারা। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই দেখা যায় এগিয়ে এই জোটই।

প্রসঙ্গত, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাক্রঁর মেয়াদ শেষ হবে ২০২৭ সালে। যে বামপন্থী জোট ক্ষমতায় আসতে চলেছে, তাদের (Riots) নীতির সঙ্গে মাক্রঁর দলের নীতির ফারাক বিস্তর। তাই বামপন্থীদের মধ্যে থেকে কেউ প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলে, প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তাঁর যে ‘ঠান্ডা লড়াই’ চলতেই থাকবে, তা বলাই বাহুল্য (France Election 2024)।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

france

bangla news

Bengali news

riots

news in bengali

Election 2024

France Election 2024

left wing alliance

President Emmanuel Macron

nfp