img

Follow us on

Tuesday, Apr 23, 2024

Ram Mandir: ‘ছাতু সঙ্গে রাখুন’! গ্রীষ্মে পুণ্যার্থীদের পরামর্শ রাম মন্দির কর্তৃপক্ষের, বিশেষ ব্যবস্থা কাশীতেও

তীর্থ যাত্রীদের জন্য গ্রীষ্মকালে কী ব্যবস্থা নিচ্ছে রাম মন্দির ও কাশী বিশ্বনাথ কর্তৃপক্ষ?

img

অযোধ্যা রাম মন্দির ও কাশী বিশ্বনাথ মন্দির (সংগৃহীত ছবি)

  2024-04-02 15:49:16

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: ২২ জানুয়ারি রাম মন্দিরের উদ্বোধনের পর থেকে লক্ষ লক্ষ ভক্তের পা পড়ছে অযোধ্যার তীর্থভূমিতে। রাম জন্মভূমি (Ram Mandir) তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট জানিয়েছে, প্রতিদিন গড়ে ১ লক্ষ করে ভক্ত সমাগম হচ্ছে অযোধ্যাতে। ১৭ এপ্রিল সারা দেশে পালিত হবে রামনবমী। এই সময় অযোধ্যাতে ভক্তদের ভিড় খুবই বেশি হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এপ্রিলের শুরুতেই তীব্র গরমে হাঁসফাঁস করছেন মানুষজন। এই আবহে রাম নবমীতে গরম খুব বাড়বে বলেই জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। এমন সময় লক্ষ লক্ষ ভক্তদের স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিতে দেখা গেল রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টকে। প্রখর গ্রীষ্মের মোকাবিলা করার জন্য রাম মন্দিরে সঙ্গে করে ছাতু আনার পরামর্শ দিলেন ট্রাস্টের (Ram Mandir) সাধারণ সম্পাদক চম্পত রাই। অন্যদিকে, তীব্র দাবদাহে বারাণসীর পারদও ছুঁয়েছে ৩৮° সেন্টিগ্রেডে। সারা বছর ধরেই বারাণসীতে ভক্তদের ভিড় জমলেও চৈত্র- বৈশাখ মাসে এই ভিড় সব থেকে বেশি হয়। গরমের মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুত হয়েছে কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরও। 

কী বলছেন রাম মন্দির ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক?

চম্পত রাই বলেন, “সামনে রাম নবমী (Ram Mandir) আসছে। এই সময় ২ লক্ষেরও বেশি দর্শনার্থী আসবেন বলে আশা করছি। কিন্তু, অযোধ্যা কি এই বিপুল সংখ্যক অতিথিকে স্বাগত জানাতে পারবে? গরমই আমাদের সামনে সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ। ভক্তদের যাতে কোনো অসুবিধা না হয়, তা নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য। বিশেষ করে তারা যাতে খাদ্য এবং জল পর্যাপ্ত পরিমাণে পায়, তা আমাদের অগ্রাধিকার। জলের সমস্যা হবে না। কিন্তু খাদ্যের ব্যবস্থা করা একটা চ্যালেঞ্জ। অযোধ্যা দর্শনার্থীদের সংখ্যা ক্রমে বাড়ছে। তা সত্ত্বেও এখনও পর্যন্ত কোনও পদদলিত হওয়ার ঘটনা ঘটেনি। আশা করছি ভবিষ্যতেও ঘটবে না। আমি দর্শকদের অনুরোধ করব, নিজেদের নিরাপত্তার কারণে, রাম মন্দির (Ram Mandir) পরিদর্শন করার সময় দলবদ্ধভাবে থাকুন। আগত ভক্তদের আমি তাদের সঙ্গে ছাতু আনতে অনুরোধ করছি। ছাতু খেলে তাঁরা গরমের হাত থেকে রক্ষা পাবেন।”

বিশেষ ব্যবস্থা কাশীতেও

কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরের প্রধান নির্বাহী বিশ্বভূষণ মিশ্র জানিয়েছেন, মন্দিরে আগত দর্শনার্থীদের জন্য জলের কুলার, ভেজা পাটের মাদুর ও ছায়ার জন্য জার্মান হ্যাঙারের ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া ভক্তরা যাতে গরমে কষ্ট না পান সেজন্য সমস্ত রকমের বন্দোবস্ত ইতিমধ্যে শুরু করেছে মন্দির কর্তৃপক্ষ। গরমের কারণে দর্শনার্থীদের চিকিৎসা পরিষেবা দিতেও প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরে। এর জন্য মন্দিরের কাছাকাছি অস্থায়ী হাসপাতাল খোলা হবে বলে জানা গিয়েছে।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  WhatsappTelegramFacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

bangla news

Bengali news

Ram Mandir

ram mandir ayodhya

Summer Tips

kashi Viswanath Mandir

ram janam bhumi trust


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর