img

Follow us on

Wednesday, Jun 19, 2024

PM Modi: "নেহরু থেকে রাহুল...", চম্পারণে ইতিহাস টেনে কংগ্রেসকে তুলোধনা মোদির

"দেশকে ধ্বংস করেছে", কাকে উদ্দেশ্য করে বললেন মোদি?

img

প্রতীকী চিত্র

  2024-05-21 18:15:56

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: ৬০ বছর দেশকে ধ্বংস করেছে কংগ্রেস। তিন-চারটে প্রজন্ম নষ্ট করেছে দেশের সবচেয়ে পুরনো এই রাজনৈতিক দল। সরাসরি অভিযোগ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। বিহারের পূর্ব চম্পারণের (East Champaran) দলীয় সভায় প্রধানমন্ত্রী সরাসরি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, “ইন্ডিয়া জোটের কোন এজেন্ডা নেই। শুধুমাত্র মোদিকে গালাগালি করা ছাড়া তাঁদের কোনও কাজ নেই।”এদিন রাহুল গান্ধীর (Rahul Gandhi) নাম না করে বলেন তিনি বলেন, “কেউ চাইছে মোদির জন্য কবর খুঁড়বে। কেউ বলছে তারা মোদিকে কবর দিয়ে দেবে। কংগ্রেসের যুবরাজ চাইছেন মোদির চোখে জল দেখতে।” 

স্বাধীনতা আন্দোলনে চম্পারণের ভূমিকা

চম্পারণ থেকে সত্যাগ্রহ শুরু করেছিলেন মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী। নীল চাষের বিরুদ্ধে যে আন্দোলন শুরু হয়েছিল তাঁর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন গান্ধী। স্বাধীনতা আন্দোলনের মাটিতে দাঁড়িয়ে স্বাধীনতা লগ্নে গান্ধীকে কীভাবে নিষ্ক্রিয় করে দিয়েছিল কংগ্রেসের তৎকালীন নেতারা সেই কথা এদিন ফের মনে করালেন মোদি। এক্ষেত্রে নাম না নিলেও তাঁর নিশানায় ছিলেন জওহরলাল নেহরু। তিনি বলেন, “ক্ষমতায় আসার প্রথম দিনেই বাপুর নীতি আদর্শকে পুরোপুরি ছেড়ে দিয়েছিল।”

রাহুলকে কটাক্ষ মোদির

নাম না করে রাহুলকে কটাক্ষ করে নরেন্দ্র মোদি (PM Modi) বলেন, “যাঁরা রুপোর চামচ মুখে নিয়ে জন্ম নিয়েছেন, তাঁরা জানে না কঠিন পরিশ্রম কী জিনিস। আমি শুনেছি কেউ বলছে, ৪ জুনের পর মোদি বেড রেস্টে চলে যাবে। আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি, ভারতের কোনও মানুষ যাতে অসুস্থ হয়ে বেড রেস্টে না যায়। ভারতের প্রত্যেক মানুষ যেন শক্তিতে পরিপূর্ণ থাকে। কিন্তু যারা জঙ্গল রাজ চালিয়েছে তাঁদের কাছ থেকে আর কী আশা করা যায়। দেশ কারো ইচ্ছায় নির্ভর করে চলবে না। মোদি হয়তো ইন্ডি জোটের কয়েকজনের চোখের কাঁটা। কিন্তু মোদি এদেশের মানুষের হৃদয়ে আছে।”

বিহারের সবচেয়ে বড় সমস্যা কর্মসংস্থান

প্রসঙ্গত বিহারের সবচেয়ে বড় সমস্যা কর্মসংস্থান। শ্রমিক হিসেবে বিহারের একটা বড় অংশের মানুষ সারা ভারতবর্ষে এবং বিদেশে কাজ করেন। স্থানীয়ভাবে রোজগারের অভাব রয়েছে বিহারে। এর জন্য বিহারের কংগ্রেস এবং লালু জমানার জঙ্গলরাজকে দায়ী করলেন মোদি। প্রসঙ্গত ষষ্ঠ দফায় ২৫ মে ভোট রয়েছে দেশের নানান। প্রান্তে ১৯ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া এই ভোট চলবে ১ জুন পর্যন্ত। ৪ জুন দেশে গণনা হবে।

আরও পড়ুন: ব্যাঙ্কিং সেক্টরে মুনাফা ছাড়াল ৩ লাখ কোটির ঘর, কী বললেন প্রধানমন্ত্রী?

এদিন বিহারে ইন্ডি জোটের সহযোগী আরজেডিকে নিশানা করেন মোদি (PM Modi) । তিনি বলেন, “পঞ্চম দফার নির্বাচন হয়েছে। ওরা হেরে গিয়েছে। যখন ইভিএম খুলবে তখন দুনিয়া দেখবে কীভাবে ওরা হেরেছে। ইন্ডি জোটের পাপের সঙ্গে দেশ আর এগোতে পারবে না। ৪ জুন আরজেডি কংগ্রেসের উপর প্রহার হবে। দেশের সনাতনকে গালি দেওয়া, তুষ্টিকরণ ও দুর্নীতি করা দলগুলি ভেসে যাবে।”

Tags:

rahul gandhi

Madhyom

PM Modi

bangla news

Bengali news

East Champaran


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর