img

Follow us on

Sunday, Jul 21, 2024

Nestle India: ভারতে বিক্রিত বেবি ফুডে অতিরিক্ত চিনি! নেসলের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের পথে কেন্দ্র

Nestle Cotroversy:  নেসলের বিরুদ্ধে তদন্তে নামছে কেন্দ্রীয় সংস্থা ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি অফ ইন্ডিয়া

img

বেবি ফুডে চিনি! সমস্যায় নেসলে।

  2024-04-20 16:07:10

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: খাদ্যসুরক্ষা নিয়ে বিরাট প্রশ্নের মুখে পড়ল নেসলে ইন্ডিয়া (Nestle India)। অভিযোগ, ভারতের বাজারে বিক্রিত শিশুখাদ্যে চিনি মেশাচ্ছে নেসলে সংস্থা। যা শিশুদের পক্ষে একাধিক সমস্যার কারণ হতে পারে। ‘পাবলিক আই’ নামক এক সুইস সংস্থার অনুসন্ধানে এই তথ্য উঠে এসেছে। এর ফলে এবার কড়া শাস্তির মুখে পড়তে পারে নেসলে। কোম্পানির বিরুদ্ধে এবার তদন্তে নামছে কেন্দ্রীয় সংস্থা ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্য়ান্ডার্ড অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (FSSAI)। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ভারত থেকে ব্যবসা গোটানোর নির্দেশ জারির রয়েছে সমূহ সম্ভাবনা। 

কেন চিনি খারাপ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে দুই বছরের কম বয়সি শিশুদের চিনি না খাওয়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ২০২২ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে এই নিয়ে কড়া নির্দেশ জারি করে বলা হয়, শিশুরা খেতে পারে এমন কোনও খাবারে চিনি মেশানো যাবে না। অল্প বয়সে চিনি খেলে পরবর্তীকালে চিনিজাতীয় খাবারের দিকেই আসক্তি বাড়ে। যা থেকে ওবেসিটি, ডায়াবেটিস, পেটের সমস্যা, হার্ট ও লিভারের সমস্যা তৈরি হয়।

নেসলের বিরুদ্ধে অভিযোগ

অভিযোগ, ভারতের বাজারে বিক্রিত শিশুখাদ্যে চিনি মেশানো হলেও ব্রিটেন ও ইউরোপীয় বাজারে বিক্রিত শিশুখাদ্যে কোনও চিনি মেশানো হয় না। পাবলিক আই ও ইন্টারন্যাশনাল বেবিফুড অ্যাকশন নেটওয়ার্কের যৌথ গবেষণায় এই পার্থক্য ধরা পড়েছে। এশিয়া, আফ্রিকা ও লাতিন আমেরিকা থেকে নেসলের শিশুখাদ্যের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। সেই নমুনা বেলজিয়ামের গবেষণাগারে পাঠানো হয়। সেখানেই দেখা যায়, ব্রিটেন ও ইউরোপে বিক্রিত খাবারের মধ্যে চিনি নেই। অথচ এশিয়া, আফ্রিকা ও লাতিন আমেরিকার দেশগুলিতে বিক্রিত খাবারের মধ্যে চিনি মেশানো হয়। ভারতে প্রতি পরিবেশনে ২.২ গ্রাম চিনি মেশায় নেসলে ইন্ডিয়া।

আরও পড়ুন: ‘‘সংরক্ষণ থাকবে, মোদির নামেই প্রথম দফায় বাম্পার ভোট’’, বললেন শাহ

ভারত সরকারের পদক্ষেপ

এই তদন্ত রিপোর্টে বিষয়টি সামনে আসার পরই নড়েচড়ে বসে ভারত সরকার। এর পরই ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্য়ান্ডার্ড অথরিটি অফ ইন্ডিয়া-কে (FSSAI) পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেয় কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণাধীন সেন্ট্রাল কনজিউমার প্রোটেকশন অথরিটি (CCPA)। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন কেন্দ্রের ক্রেতা সুরক্ষা দফতরের সচিব ও সিসিপিএ-র ডিরেক্টর নিধি খারে। তাঁর কথায়, 'আমরা নেসলের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের সঠিক তদন্তের জন্য FSSAI-কে চিঠি লিখেছি। সেখানে সেরেল্যাকের উল্লেখ্য রয়েছে।' তদন্ত রিপোর্ট পেশ হলে সংস্থার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এর আগে শিশু অধিকার রক্ষার জাতীয় কমিশন এনসিপিসিআর-ও তদন্তের বার্তা দিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল এফএসএসএআইয়ের উদ্দেশে।

নেসলের সাফাই

ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে সাফাই দিয়েছে সুইজারল্যান্ডের বহুজাতিক কোম্পানি। নেসলের দাবি, গত পাঁচ বছরে ধীরে ধীরে চিনির পরিমাণ কমানো হয়েছে শিশুদের জন্য উৎপাদিত খাবারে। গত পাঁচ বছরে ধীরে ধীরে চিনির পরিমাণ কমানো হয়েছে শিশুদের জন্য উৎপাদিত খাবারে। আগেও বিতর্কে জড়িয়েছে নেসলে। ২০১৫-য় এই সংস্থার তৈরি জনপ্রিয় খাদ্যপণ্য ম্যাগিতে লেড এবং মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট মেশানোর অভিযোগ ওঠে। ফলে কিছুদিনের জন্য ম্যাগিকে নিষিদ্ধ করে ভারত সরকার।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

bangla news

Nestle India cerelac

nestle

nestle share price

nestle cerelac sugar

nestle controversy

nestle news


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর