img

Follow us on

Thursday, Jul 25, 2024

Hathras Stampede Incident: হাথরসের ঘটনায় মৃত শতাধিক, শোকস্তব্ধ দেশ, যোগীর সঙ্গে কথা প্রধানমন্ত্রীর

Hathras Satsang: ছোট জায়গায় জমায়েত! হাথরসে পদপিষ্টর ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ

img

হাথরসের ঘটনায় শোকাতুর পরিবার।

  2024-07-03 10:29:30

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: হাথরসে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদপিষ্ট (Hathras Stampede Incident) হয়ে মৃতের সংখ্যা শতাধিক। বুধবার সকাল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১২১। বহু মানুষ গুরুতর আহত অবস্থায় সে রাজ্যের একাধিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এই ঘটনায় দেশ জুড়ে শোকের ছায়া। শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু সহ সমাজের একাধিক ব্যক্তিত্ব। এই ঘটনার উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

ঘটনার উচ্চপর্যায়ে তদন্ত (Hathras Stampede Incident) 

এটার পুলিশ সুপার রাজেশ কুমার সিং বলেন, “হাথরসের মুঘলাগড়ি গ্রামে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান চলছিল। সেই সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে। কেন এবং কী ভাবে এই ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।” মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ঘটনাটির খোঁজখবর নিয়েছেন। তিনি ইতিমধ্যেই একটি তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন। সেই তদন্ত কমিটির নেতৃত্বে থাকবেন আগ্রার অতিরিক্ত ডিজি। ঘটনার খবর পেয়ে মুঘলাগড়ি গ্রামের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী লক্ষ্মীনারায়ণ চৌধরী এবং সন্দীপ সিং। রাজ্য পুলিশের ডিজিও ঘটনাস্থলে গিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর শোকবার্তা

হাথরসের ঘটনায় (Hathras Stampede Incident) শোকস্তব্ধ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গোটা পরিস্থিতির উপর কেন্দ্রীয় সরকার নজর রাখছে বলে জানান তিনি। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গেও কথা বলেন। নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ২ লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।

ঘটনায় মৃতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।  শোক জানিয়েছেন অমিত শাহ, রাজনাথ সিং সহ একাধিক শীর্ষ নেতা। শোক জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা রাহুল গান্ধী। তিনি জানিয়েছেন, ঘটনা খুবই দুঃখজনক। মৃতদের পরিজনের প্রতি সমবেদনা।

হাথরসে কী ঘটেছিল (Hathras Stampede Incident) 

মঙ্গলবার মুঘলাগড়ির ফুলরাই গ্রামে, ভোলে বাবা নামে একজন ধর্মগুরু সৎসঙ্গের আয়োজন করেছিলেন। সেখানে প্রায় ৮০ হাজার ভক্ত ভিড় জমান। মঞ্চের অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর যখন সৎসঙ্গ (Hathras Satsang) প্রচারক মঞ্চ থেকে নামছিলেন, ঠিক সেই সময়ই ভক্তদের ভিড় তাঁর দিকে এগোতে শুরু করে। এভাবে হুড়োহুড়ি করে'বাবাকে' ছুঁতে গিয়েই নিজেদের জীবন শেষ করে দিলেন ভক্তরা।  সেবায়েতরা ভিড় সামলাতে গেলে  বহু মানুষ পদদলিত হন। ছোট জায়গায় এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে গিয়েই সমস্যা, বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের।

কোথায় সেই স্বঘোষিত ধর্মগুরু

ঘটনার (Hathras Stampede Incident) পর রাত পেরিয়ে সকাল হয়ে গেলেও, এখনও দেখা নেই ঘটনার কেন্দ্রে থাকা সেই স্বঘোষিত ধর্মগুরু সাকার বিশ্ব হরি ভোলে বাবা’র । মঙ্গলবার বিকেলে উত্তর প্রদেশের হাথরাসে একটি ‘সৎসঙ্গ’ তথা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন বহু মানুষ। অনুষ্ঠান শেষে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে শতাধিক মানুষের। ওই অনুষ্ঠানের আয়োজক তথা ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে ইতিমধ্যেই। পুলিশের অনুমান, ফুলরাই গ্রাম, অর্থাৎ যেখানে ওই পদপিষ্ট হওয়ার ঘটনা ঘটেছে, সেখান থেকে অন্তত ১০০ কিলোমিটার দূরে মাইনপুরীর আশ্রমে রয়েছেন ‘ভোলেবাবা’। হাথরসে এখনও চলছে উদ্ধারকাজ। নামানো হয়েছে ডগ স্কোয়াড। ফরেনসিক পরীক্ষাও চলছে। একযোগে কাজ করছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ, এনডিআরএফ। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানান,  রাজ্য সরকার এই ঘটনার তদন্ত করছে । এর পিছনে কোনও ষড়যন্ত্র আছে কিনা খতিয়ে দেখা হবে।

 

দেশের খবর, দশের খবর, সব খবর, সবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের  Whatsapp, FacebookTwitter, Telegram এবং Google News পেজ।

Tags:

Madhyom

PM Modi

bangla news

Hathras Stampede Incident

Hathras Satsang

Hathras Accident

Hathras UP Stampede

Hathras Satsang Tragedy


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর