img

Follow us on

Thursday, Jul 18, 2024

Madras High Court: “বাক স্বাধীনতা যেন ঘৃণা ভাষণ হয়ে না দাঁড়ায়”, মন্তব্য মাদ্রাজ হাইকোর্টের

“সনাতন ধর্ম দেশ, রাজা, মা-বাবা ও গুরুর প্রতি দায়িত্ব পালনের শিক্ষা দেয়..."

img

মাদ্রাজ হাইকোর্ট। ফাইল ছবি।

  2023-09-17 20:17:47

মাধ্যম নিউজ ডেস্ক: বাক স্বাধীনতা যেন ঘৃণা ভাষণ হয়ে না দাঁড়ায়। শনিবার এক মামলার শুনানিতে এই সতর্কবার্তা শোনাল মাদ্রাজ হাইকোর্ট (Madras High Court)। বিচারপতি এন শেষাসয়ী বলেন, “সনাতন ধর্ম দেশ, রাজা, মা-বাবা ও গুরুর প্রতি দায়িত্ব পালন, গরিব আর্তজনের যত্নের শিক্ষা দেয়। সনাতন ধর্ম নিয়ে হয়তো অনেক ভুল ভাবনা তৈরি হয়েছে। অনেকে মনে করছেন, সনাতন ধর্ম মানেই জাতপাত আর অস্পৃশ্যতা। এটা চূড়ান্ত ভুল ধারণা।”

কারও বিশ্বাসে আঘাত নয়

তিনি বলেন, “যদিবা সনাতন ধর্মের ধারণায় জল-অচলের অস্তিত্ব থেকেও থাকে, স্বাধীন দেশে সংবিধানে যেখানে সবার সমান অধিকার স্বীকৃত – সেখানে অস্পৃশ্যতার কোনও ঠাঁই নাই।” বিচারপতি (Madras High Court) বলেন, “ধর্মের মতো স্পর্শকাতর বিষয়ে সবার সতর্ক থাকা উচিত যাতে কোনও বক্তব্য কারও বিশ্বাসে আঘাত না করে।” সনাতন ধর্ম নিয়ে দেশজুড়ে চলছে বিতর্ক। দিন কয়েক আগে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্ট্যালিনের পুত্র উদয়নিধি স্ট্যালিন সনাতন ধর্ম সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। এই ডিএমকে রয়েছে বিজেপি বিরোধী ২৬টি রাজনৈতিক দলের জোট ‘ইন্ডিয়া’য়। ইন্ডি জোটের তরফে এর কোনও প্রতিক্রিয়া না দেওয়ায় ডিএমকের পাশাপাশি ইন্ডি জোটকেও নিশানা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আক্রমণ শানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণও।

ইন্ডি জোটকে নিশানা নাড্ডার 

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাও নিশানা করেন ইন্ডি জোটকে। তবে এর সঙ্গে এদিন মাদ্রাজ হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণের কোনও সম্পর্ক নেই। কারণ এদিন যে মামলার প্রেক্ষিতে বিচারপতি ওই মন্তব্য করেছিলেন, সেটি একটি সরকারি শিল্পশিক্ষা কলেজের সার্কুলারের প্রেক্ষিতে। ওই সার্কুলারে শিক্ষার্থীদের ‘সনাতনের বিরোধিতায়’ মতামত জানাতে বলা হয়েছিল। এই সার্কুলার চ্যালেঞ্জ করেই মামলা দায়ের হয় হাইকোর্টে। সেই মামলার শুনানিতেই এমন মন্তব্য করেন বিচারপতি। তিনি (Madras High Court) বলেন, “যেহেতু ধর্মীয় আচরণগুলি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলায়, সেহেতু কিছু ক্ষতিকর বা বাজে বিষয় সবার অলক্ষ্যে ঢুকে পড়ে এতে। এগুলো আগাছা। নির্মূল করা উচিত। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, ফলসটাকেই কেটে ফেলতে হবে!”

আরও পড়ুুন: জন্মদিনের শুভেচ্ছা-বন্যায় ভাসলেন প্রধানমন্ত্রী, রাহুল, কেজরিওয়াল কে নেই তালিকায়?

প্রসঙ্গত, উদয়নিধির মন্তব্য প্রসঙ্গে এদিন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণও বলেছিলেন, “যে সব মন্তব্য হিংসা ছড়াতে উৎসাহ দেয় কিংবা হিংসায় ইন্ধন জোগায়, সে সব কথা বলা ঠিক নয়।  সংবিধানেও বলা হয়েছে, যে সব কথায় অশান্তি ছড়ায়, তা বলা ঠিক নয়।”

 

দেশের খবরদশের খবরসব খবরসবার আগে পেতে ফলো করুন আমাদের FacebookTwitter এবং Google News পেজ।

Tags:

Madras High Court

bangla news

Bengali news

sanatan dharma row


আরও খবর


খবরের মুভি


ছবিতে খবর